fbpx

রত্নদ্বীপ রিসোর্ট: সেন্ট মার্টিনে কম খরচে রাত্রি যাপনের নির্ভরযোগ্য স্থান

আমি দু পয়সা রোজগার করা মানুষ। কোথাও ঘুরতে গেলে চেষ্টা করি যত কম খরচে ঘুরাঘুরি শেষ করতে। ছোট বোন চাকরিতে জয়েন করবে। বায়না ধরল তাকে যেন সেন্ট মার্টিনে ঘুরিয়ে নিয়ে আসি। কি আর করার! অগত্যা বাধ্য হয়েই একদিনের মাঝেই চলে গেলাম সেন্ট মার্টিন। চতুর্দিকে বিস্তীর্ণ নীল জলরাশির মাঝে বুক উঁচিয়ে থাকা ছোট একটি দ্বীপ সেন্ট মার্টিন। প্রতিদিন প্রায় ৫০০০ পর্যটক ছুটে যান সাগরের সৌন্দর্য উপভোগ করতে।

সুসজ্জিত রিসোর্ট

এত বিশাল সংখ্যক পর্যটকের কারণে সেন্ট মার্টিনের হোটেল ভাড়া আগের চেয়ে অনেক বেড়ে গেছে। আগে যেখানে ৫০০ টাকায় ডাবল বেডের রুম পাওয়া যেত সেখানে এখন ভাল মানের রুম পেতে ২০০০ খরচ করতে হয়। জাহাজ থেকে নেমে খুঁজে-টুজে উঠলাম রত্নদ্বীপ রিসোর্টে। জেটি থেকে একটু দূরে রিসোর্টটির অবস্থান। একটু দূরে হলেও এর পরিবেশ আপনার মনের ক্লান্তি ভুলিয়ে দিবে। রিসোর্টের সামনেই বিশাল ফাঁকা জায়গা। সেখানে দাঁড়িয়ে আছে বিশাল ঝাউগাছ। শহরের কোলাহল থেকে ছুটে এসে খুঁজে পাবেন একদম নির্ভেজাল প্রকৃতির ছোঁয়া।

ক্যাম্পিং করার জন্য আছে মনোরম প্রাকৃতিক পরিবেশ

ভিতরের রুমগুলো অনেক পরিষ্কার। বেলকনিতে বসে সমুদ্র দেখতে দেখতে চা খেয়ে কাটিয়ে দিতে পারবেন ঘণ্টার পর ঘণ্টা। শহরের একঘেয়েমিকে দূর করার জন্য আছে ঝাউগাছে ঝুলানো হ্যামক। হ্যামকে দুলতে থাকবেন আর সমুদ্রের ঠাণ্ডা বাতাস এসে আপনার শরীরে শীতল ছোঁয়া দিয়ে যাবে। বর্ণনা শুনে বুঝে গেছেন রিসোর্টটি কেমন পরিবেশে অবস্থিত। যারা নিরিবিলি ঘুরতে চান তাঁদের জন্য তো জায়গাটা পোয়াবারো। এখানে নেই কোন কোলাহল। যারা ক্যাম্পিং করতে পছন্দ করেন তাঁরাও এখানে চলে আসতে পারেন। রিসোর্টের বাহিরে একদম সমুদ্রের পাড় ঘেঁষে তাঁবু পেতে ক্যাম্পিং করতে পারবেন। পূর্ব বিচ যদি ভাল না লাগে তাহলে মাত্র ৫ মিনিট হেঁটেই চলে যেতে পারবেন পশ্চিম বিচে। সব মিলিয়ে বাজেট ট্র্যাভেলারদের জন্য স্বপ্নের জায়গা।

ভাড়া কত
এই রিসোর্টে ডাবল বেড ও ট্রিপল বেডের রুম আছে। ৬ জন থাকা যাবে এমন রুমের ভাড়া মাত্র ১৫০০ টাকা। ভিতরে আছে ৩টি বেড। আর ৪ জন থাকা যাবে এমন রুমের ভাড়া মাত্র ১০০০ টাকা। ভিতরে পাবেন ২টি বেড। অন্যান্য রিসোর্টের তুলনায় ভাড়াটা অনেক কম মনে হয়েছে।

কীভাবে যাবেন
এখানে যাতায়াত ব্যবস্থাও খুব সহজ। সেন্ট মার্টিন জেটি থেকে ছেড়াদ্বীপের দিকে বিচে ধরে ১০ মিনিট হাঁটলেই পৌঁছে যাবেন। আর যারা হাঁটতে পারবেন না তাঁরা সেন্ট মার্টিন বাজার থেকে ভ্যান দিয়ে নেভাল ক্যাম্প পর্যন্ত যেতে পারবেন। এরপর ২ মিনিটের হাঁটা পথ।

কীভাবে বুকিং দিবেন
যারা অগ্রিম বুকিং দিতে চান তাঁরা কল করতে পারেন ০১৮১৮-০৬১০০৫। এ ছাড়া আপনার প্রয়োজনীয় সব তথ্যও জেনে নিতে পারেন এ নাম্বার থেকে।

আশা করছি বাজেট ট্রাভেলারদের পোস্টটি খুব কাজে দিবে। সেন্ট মার্টিনে এত কম টাকায় এ রকম স্ট্যান্ডার্ডের রুম পাওয়াই মুশকিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top