fbpx

Month: February 2020

বাঘ থাকে জঙ্গলে, ভয় করে সকলে: শেষ পর্ব

শিপে ফিরে সন্ধ্যার চা-নাস্তা খেয়ে তেহজীব আর আমি কেবিনে যেয়ে ঘুমিয়ে গেলাম। ঘুম ভাঙলো মুশতাকের ডাকে। ও আমাদের বারবিকিউ খাওয়ার জন্য ডাকছে। আজকে রাতে বারবিকিউয়ের আয়োজন হয়েছে। মুরগী আর কোরাল মাছের বারবিকিউ, সাথে পরোটা। যথারীতি বেশ ভালো হয়েছিল খাবারটা। খেয়ে…

বাঘ থাকে জঙ্গলে, ভয় করে সকলে: ২য় পর্ব

পরদিন খুব ভোরেই ঘুম থেকে ওঠা হলো। আজকে আমাদের অনেক কিছু দেখার আছে। সকালে নাস্তার আগেই আমরা যাবো কটকা অভয়ারণ্যে। সুন্দরবনের দক্ষিণ-পশ্চিম প্রান্তে শরণখোলা রেঞ্জের অধীন সমুদ্রের তীরবর্তী পর্যটন কেন্দ্র এই কটকা অভয়ারণ্য। ট্রলার যখন নোঙর করলো খালের পশ্চিম পাড়ে,…

ঘুরে দেখি ঐতিহাসিক মুজিবনগর: মানচিত্র পর্ব

এগিয়ে যাচ্ছি আমরা মূল কমপ্লেক্সের দিকে। কমপ্লেক্স সংলগ্ন খোলা চত্ত্বরে লুকিয়ে আছে উপমা। ঐতিহাসিক ছয় দফা যেন পথিকের কাছে জানিয়েছে পথের ধূলো মেখে ইতিহাসের দাবি। গোলাপের সুবাসে সে যেন বাতাসে শুনিয়ে যায় ইতিহাসের আহ্বান, ছয়টি গোলাপ বাগান আর আমাদের অধিকার…

ঘুরে দেখি ঐতিহাসিক মুজিবনগর: স্মৃতিসৌধ পর্ব

অটো করে আবার ফিরে এলাম মেহেরপুর শহরে। মুজিব নগর যাবার উদ্দেশে এবার বাসে উঠলাম। বাস চলছে ধিমা তালে। দখিণা হাওয়ায় কি ভাসে মুজিব নগরের ইতিহাস। বাঙালির অস্তিত্ব রক্ষার সূচনায় মেহেরপুরের ভূমিকা ছিল অপরিসীম। আর এই মেহেরপুরের ছোট্ট একটি শহর মুজিবনগর।…

বাঘ থাকে জঙ্গলে, ভয় করে সকলে: ১ম পর্ব

অনেকদিন ধরেই সুন্দরবন যাবো যাবো করছিলাম। ব্যাটে-বলে মিলছিল না। এদিকে মুশতাকের কলিগরাও বলছিলেন পরিবার নিয়ে যাওয়ার মতো একটা ট্যুর হলে ভালো হয়। এইবার জানুয়ারিতে তাই হুট করেই সুন্দরবনের প্ল্যানটা হয়ে গেল। আমাদের বাচ্চা-কাচ্চাসহ ১৩ জনের গ্রুপের জন্যে এই ট্যুরের সার্বিক…

লাইফ টাইম দুঃসাহসী অভিজ্ঞতা বাঞ্জি জাম্পিং

ভোরের বয়স ১৩ বছর কয়েক মাস; পড়ে ক্লাস এইটে মোহাম্মদপুর প্রিপারেটরি স্কুলে। বাংলাদেশি নাগরিকদের মধ্যে ভোর সবচেয়ে কম বয়সে বাঞ্জি জাম্প দিয়েছে । নেপাল ভ্রমণের শুরু থেকেই বাঞ্জি জাম্পিংয়ের বায়না ধরেছিল, ভোরের বাবা-সূর্যের কাছে। ভোর কে কথাও দিয়েছিল সূর্য। ১৮…

নিষিদ্ধ রাজ্যে একদিন

ঘোরাঘুরি আর অ্যাডভেঞ্চার বলতে গেলে অনেকটা নেশার মতো মিশে আছে আমার রক্তে। তাইতো ব্যাটে-বলে মিলে গেলেই চলে যাই নতুন কোন অজানার পথে কিংবা অজানা কোন রাজ্যে। আর এই ঘোরাঘুরির নেশাটা বলতে গেলে পৈত্রিকসূত্রে পেয়েছিলাম শ্রদ্ধেয় আব্বাজানের কাছ থেকে। তো যাইহোক…

আমঝুপি নীলকুঠির গল্প

বাস চলছে মেহেরপুরের পথে। পিছে সাঁইজির শহর ফেলে ছুটছি নতুন গন্তব্যে। এসেছিলাম এ শহরে প্রথম ২০১৭ সালে। উত্তর থেকে দক্ষিণের এক দীর্ঘ যাত্রা পার করে সেবার এসেছিলাম মেহেরপুর। রাজশাহী থেকে কুষ্টিয়া হয়ে মেহেরপুরের সেই যাত্রা আজও মস্তিষ্কের ধূসর কোষে জমা…

লালন সাঁইজির দেশে: লালন শাহর বসতবাড়ি

দিন শেষে ক্লান্ত এ দেহ চায় একটু প্রশান্তি। সেই শান্তির খোঁজেই মিলপাড়া থেকে হেঁটে হেঁটে চলে এলাম লালনের বসতবাড়ি। শেষ বিকালের মন খারাপি আকাশ মেঘ লুকোচুরি দিনের সুবাস দিয়ে রাতের আমানিশায় ডুবে যেতে প্রস্তুত হচ্ছে। দিনের আলো হয়তো আর পাওয়া…

লালন সাঁইজির দেশে: মোহিনী মিল

হেঁটে যাচ্ছি মিলপাড়ার রাস্তা ধরে। পাড় হলাম রবি ঠাকুরের প্রিয় পাত্র যজ্ঞেশ্বরের ইঞ্জিনিয়ারিং ভবনটি। আর একটি সামনে এগিয়ে শুরু হল মোহিনী মিলের রাজ্য। বিশাল এক এরিয়া নিয়ে মোহিনী মিলের অবস্থান। প্রথমে দেখতে পেলাম একটা ছোট্ট হলুদাভ দ্বিতল ভবন। স্থাপনার বয়স…

Back to top