fbpx

ট্র্যাভেলার্স অফ বাংলাদেশের আয়োজনে কক্সবাজারে হচ্ছে ‘মেরিন ড্রাইভ আলট্রা ২০২০’

ট্র্যাভেলার্স অফ বাংলাদেশ (টিওবি) ভ্রমণভিত্তিক একটি ফেসবুক গ্রুপ যার সদস্য সংখ্যা দশ লাখের ও বেশী। ভ্রমণপ্রিয় মানুষকে স্বনির্ভরভাবে ঘুরাঘুরির জন্য বিভিন্ন তথ্যের আদান প্রদান আর ভ্রমণের বাস্তব অভিজ্ঞতা একে অপরের সাথে ভাগাভাগি করার জন্য চমৎকার এক প্লাটফর্ম। দেশ বিদেশের রোমাঞ্চকর সব ভ্রমণের গল্প আর পাহাড়, সমুদ্র কিংবা হিমালয়ের বিভিন্ন অভিযানের রোমহষর্ক অভিজ্ঞতা শোনার জন্য অ্যাডভেঞ্চারপ্রেমীদের ফেসবুকীয় মিলনমেলা। তবে ট্র্যাভেলার্স অফ বাংলাদেশ (টিওবি) শুধুমাত্র ফেসবুক গ্রুপেই সীমাবদ্ধ নেই। ২০০৮ সালে যাত্রা শুরু করার পর থেকেই বিভিন্ন রকম আউটডোর অ্যাক্টিভিটি আয়োজন, অংশগ্রহণ, সহযোগিতা প্রদান ও প্রচলনে সচেষ্ট রয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় ‘ Travel Responsibly’ বা ‘ভ্রমণ হোক দায়িত্বশীল’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে জানুয়ারি ১৭-১৮ তারিখে বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজারের মেরিন ড্রাইভে ‘Marine Drive Ultra 2020’ আয়োজন করতে যাচ্ছে।

ইভেন্টের ব্যানার

এই আয়োজনে যেকোনো দৌড়বিদ অংশগ্রহণ করতে পারবে। ইতিমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে রেজিষ্ট্রেশন প্রক্রিয়া। মোট তিনটি ক্যাটাগরিতে এই দৌড় প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে। ৫০ কিলোমিটার, ১০০ কিলোমিটার এবং ১০০ মাইল (১৬১ কিলোমিটার) ক্যাটাগরি। পথ নির্ধারণ করা হয়েছে ইনানী  থেকে শুরু করে সমুদ্রতট সংলগ্ন মেরিন ড্রাইভ ধরে টেকনাফ পর্যন্ত ক্যাটাগরি অনুযায়ী বিভিন্ন দৈর্ঘ। সময় নির্ধারণ করা হয়েছে ৫০ কিলোমিটার এর জন্য ১০ ঘণ্টা, ১০০ কিলোমিটার এর জন্য ২৪ ঘণ্টা এবং ১০০ মাইলের জন্য ৩৬ ঘণ্টা। 

আলট্রা ম্যারাথন অথবা আলট্রা বলতে এক ধরনের ফুট রেস বা ক্রীড়াকে বোঝায় যা প্রথাগত ফুল ম্যারাথনের দৈর্ঘ অর্থাৎ ৪২.২ কিলোমিটার এর চেয়ে বেশি। সাধারণত আলট্রা রান ৫০ কিলোমিটার থেকে শুরু হয়ে তদুর্ধ্ব যেকোনো দৈর্ঘ্যের হতে পারে।  

ব্যানার

আলট্রা ম্যারাথন আয়োজনের উদ্দেশ্য নিয়ে আয়োজকদের কাছে জানতে চাইলে ট্র্যাভেলার্স অফ বাংলাদেশ (টিওবি) এর অ্যাডমিন তানভীর মৃদুল বলেন- 

‘এই আল্ট্রা ম্যারাথনটি আয়োজনের উদ্দেশ্যের সাথে ট্র্যাভেলার্স অফ বাংলাদেশের লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্য জড়িত। আমরা ট্র্যাভেলার্স অফ বাংলাদেশ মূলত আমাদের দেশে বিভিন্ন রকম আউটডোর অ্যাক্টিভিটি এবং অ্যাডভেঞ্চার অ্যাক্টিভিটির প্রবর্তন, বিকাশ, চর্চা এবং প্রসার ঘটানোর ব্যাপারে শুরু থেকেই কাজ করে আসছি। মেরিন ড্রাইভ আল্ট্রা ম্যারাথনের আয়োজন এই চলমান চর্চার একটি অংশ। আল্ট্রা ম্যারাথন সারা বিশ্বব্যাপী প্রচলিত একটি আউটডোর অ্যাকটিভিটি হলেও বাংলাদেশ তা বেশ অপ্রচলিত। আমরা বিশ্বাস করি যে এ ধরনের এনডিউরেন্স অ্যাক্টিভিটি প্রসার দেশের আপামর জনসাধারণকে  ইতিবাচক লাইফস্টাইল চর্চার ব্যাপারে আরো আগ্রহী করে তুলতে পারে। এছাড়া এই আল্ট্রা ম্যারাথনটির আরো একটি গুরুত্বপূর্ণ উদ্দেশ্য হচ্ছে দায়িত্বশীল ভ্রমণ বিষয়ে মানুষকে সচেতন করে তোলা।’

ম্যাডেল

তানভীর মৃদুল আরো যোগ করেন ‘মেরিন ড্রাইভ আল্ট্রা ২০২০ এর স্লোগান হচ্ছে ভ্রমণ হোক দায়িত্বশীল। দায়িত্বহীন ভ্রমণের কারণে দেশের বিভিন্ন প্রাকৃতিক ভ্রমণ গন্তব্য সমূহ বর্তমানে যথেষ্ট ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। এই আল্ট্রা ম্যারাথনটি এ ব্যাপারে পর্যটন প্রেমী মানুষদের সচেতন করে তোলার আহ্বান জানাচ্ছে।’ 

ট্র্যাভেলার্স অফ বাংলাদেশ সবসময়ের মতো এই আয়োজনকে ও রেখেছে অলাভজনক। ম্যারাথনের অংশগ্রহণকারীদেরকে দিতে হচ্ছেনা কেনো রকমের ফি। রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে। ইতিমধ্যে রেজিষ্ট্রেশনকারীদের মধ্য থেকে বাছাই পর্বে উত্তীর্ণদের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে।  ৫০ কিলোমিটার ক্যাটাগরিতে ৯৫ জন, ১০০ কিলোমিটারের জন্য ১৬ জন ও ১০০ মাইলের জন্য ৭ জন নির্বাচিত হয়েছেন।

৫০ কিলোমিটার ম্যারাথনের ভ্রমণ পথ

ইতিমধ্যে প্রকাশ করা হয়েছে ৫০ কিলোমিটার, ১০০ কিলোমিটার ও ১০০ মাইলের রুটম্যাপ। ইনানী সমুদ্র সৈকত থেকে শুরু হয়ে শীলখালি পর্যন্ত গিয়ে আবার ইনানী এসে শেষ হবে ৫০ কিলোমিটার ক্যাটাগরির রান। ১০০ কিলোমিটার এর ক্ষেত্রে ইনানী থেকে শুরু হয়ে টেকনাফ গিয়ে আবার ইনানী এসে শেষ হবে। ১০০ মাইলের ক্ষেত্রেও ইনানী থেকে শুরু হয়ে টেকনাফ হয়ে ইনানী এসে আবার টেকনাফ যেতে হবে। পথিমধ্যে প্রতি ৫ কিলোমিটার অন্তর থাকবে হাইড্রেশন বুথ এখানে দৌড়বিদদের জন্য পানীয় ও হাল্কা খাবারের ব্যবস্থা থাকবে। প্রতি ১০-১৫ কিলোমিটার অন্তর থাকবে মেজর এইড বুথ। মেজর এইড বুথে প্রাথমিক চিকিৎসার ব্যবস্থা থাকবে এছাড়া দৌড় চলাকালীন ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল টিম থাকবে সহায়তার জন্য। প্রতি ২৫ কিলোমিটা অন্তর থাকবে চেক পয়েন্ট, যেখানে নির্দিষ্ট কাট অফ টাইমের মধ্যে রিপোর্ট কর‍তে হবে।

১০০ কিলোমিটার ম্যারাথনের ভ্রমণ পথ

দৌড় চলাকালীন সময় প্লাস্টিকের কিংবা অপচনশীল পণ্য যেখানে সেখানে না ফেলে নির্দিষ্ট জায়গায় ফেলার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে আয়োজকদের পক্ষ্য থেকে। দৌড় প্রক্রিয়ার সম্পূর্ণ নিয়মাবলি ইতিমধ্যে প্রকাশ করা হয়েছে। দেখে নিতে পারেন এই লিঙ্কে:
https://drive.google.com/file/d/1FjJhaG-po3jcdaGs87kVwQLNhqKndbpc/view

নিয়মিত আপডেট পেতে চোখ রাখুন ইভেন্ট পেইজে:
https://facebook.com/events/s/marine-drive-ultra-2020/2916020671751074/?ti=as

অফিসিয়াল পেজ:
https://www.facebook.com/marinedriveultra/

ট্র্যাভেলার্স অফ বাংলাদেশ গ্রুপ লিঙ্ক:
https://www.facebook.com/groups/mail.tob/

টিওবি হেল্পলাইন গ্রুপ লিঙ্ক:
https://www.facebook.com/groups/tob.help/

এই আয়োজনে সহযোগী হিসেবে রয়েছে Escapade, বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশন, বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড, Bloodfriend, Coloring Little Smiles (CLS), MEEM International,  ইকো ট্যুরিজম। এছাড়াও মিডিয়া পার্টনার হিসেবে রয়েছে Ekattor TV, Dhaka Tribune, Bdnewa24.com   

ফিচার ও অন্যান্য ছবি ‘Merine Drive Ultra 2020’ পেজ থেকে সংগ্রহিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top